চিকিৎসা পদার্থবিদদের অভাবে সেবা বঞ্চিত রোগীরা 

    35


    ক্যানসারের চিকিৎসা দেশের হাসপাতালগুলোতে মেডিকেল ফিজিসিস্টের পদ থাকলেও যোগ্য চিকিৎসক পদার্থবিদদের অভাবে সেবা বঞ্চিত হচ্ছে রোগীরা। এ জন্য দ্রুত পদ অনুযায়ী পদার্থবিদদের নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

    আজ বৃহস্পতিবার চিকিৎসায় পদার্থবিদ্যা (আইসিপিএম-২২) শীর্ষক দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলনের প্রথম দিনের আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানান বক্তারা।

    বাংলাদেশ মেডিকেল ফিজিকস অ্যাসোসিয়েশন (বিএমপিএ) এবং বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে। এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে-‘ক্যানসারের যত্নে মেডিকেল ফিজিকসের সচেতনতা তৈরি করা।’

    অনুষ্ঠানে ইউনিভার্সিটি অফ মেডিকেল ফিজিকস অ্যান্ড ডসিমেট্রির পরিচালক অধ্যাপক সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ উন্নত দেশগুলোর তুলনায় অনেক বছরের বেশি পিছিয়ে। পাশাপাশি সব হাসপাতালে যেসব আধুনিক চিকিৎসা যন্ত্রপাতি ব্যবহার হচ্ছে, তার সঠিক ও দীর্ঘস্থায়ী ব্যবহারের জন্য বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ দেওয়া দরকার। এখন সময় এসেছে এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণের।’

    সালাহউদ্দিন আহমাদ বলেন, চিকিৎসায় পদার্থবিদদের ভূমিকা ইমেজিং এবং থেরাপি কৌশল যেমন সিটি, এমআরআই, পিইটি, আইএমআরটি, আইজিআরটি, পার্টিকেল থেরাপি ইত্যাদির প্রবর্তন এবং অগ্রগতির সঙ্গে আরও চ্যালেঞ্জিং হয়ে উঠছে। তাই বাংলাদেশকে এ বিষয়ে ভাবতে হবে।

    অনুষ্ঠানে জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. স্বপন কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, মেডিসিনে পদার্থবিদ্যার প্রয়োগ মানুষের স্বাস্থ্যসেবার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে উঠেছে। রেডিয়েশন থেরাপিতে, আয়নাইজিং রেডিয়েশন এক্সটার্নাল-বিম রেডিওথেরাপি বা ব্র্যাকিথেরাপির ব্র্যাকিথেরাপির মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের ক্যানসারের চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত হয়। চিকিৎসার সাফল্য বজায় রাখা এবং উন্নত করার জন্য চিকিৎসা পদার্থবিদ্যার ক্ষেত্রে গবেষণা ও উন্নয়ন অপরিহার্য।

    স্বপন কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, রেডিয়েশন থেরাপি ক্যানসার চিকিৎসার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসাবে রয়ে গেছে, যেখানে সমস্ত ক্যানসার রোগীদের প্রায় অর্ধেকই তাদের অসুস্থতার সময় রেডিয়েশন থেরাপি গ্রহণ করে। এটি ক্যানসার চিকিৎসার ৪০ ভাগ অবদান রাখে। বাংলাদেশে, যোগ্য চিকিৎসা পদার্থবিদদের অভাবের কারণে রোগীরা রেডিয়েশন থেরাপির সর্বোত্তম সুবিধা পান না। মেডিকেল ফিজিকস সম্পর্কে সচেতনতার সাধারণ অভাব থাকায় এই জ্বলন্ত সমস্যাটি কখনই সামনে আসেনি। 

    এ সময় বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন চেয়ারম্যান ডা. মো. আজিজুল হক বলেন, ‘রেডিয়েশন থেরাপির মাধ্যমে ক্যানসারের মানসম্পন্ন চিকিৎসা নিশ্চিত করতে মেডিকেল ফিজিকসে জ্ঞানের সমসাময়িক চাহিদার সঙ্গে যথেষ্ট প্রাসঙ্গিকতা রয়েছে। মেডিকেল ফিজিকস, বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ক্ষেত্রে গবেষকেরা বাংলাদেশে বাড়তে থাকবে এবং এই ক্ষেত্রের সর্বশেষ অগ্রগতির মাধ্যমে এই খাতকে আরও সমৃদ্ধ করবে।’





    Source link