বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের ভার্চুয়াল সভা – শেয়ারবাজারনিউজ.কম

26


নিজস্ব প্রতিবেদক: স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে জাতীয় শোক দিবস-২০২২ উপলক্ষ্যে শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক তাঁর জীবন ও কর্মের উপর ভার্চুয়াল সভার আয়োজন করে।

২৪ আগস্ট ডিজিটাল প্লাটফর্মে (অনলাইন ভিডিও কনফারেন্স-এর মাধ্যমে) এ সভার আয়োজন করা হয়।

ভার্চুয়াল সভায় ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুছ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এম. শহীদুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ব্যাংকের পরিচালক ড. আনোয়ার হোসেন খান, এ. কে. আজাদ ও ইঞ্জিনিয়ার মোঃ তৌহিদুর রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধু’র জীবন ও কর্মের উপর বিশদ আলোচনা করেন। এছাড়া ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল আজিজ বক্তব্য রাখেন।

অন্যান্যদের মধ্যে ব্যাংকের পরিচালকবৃন্দ আক্কাচ উদ্দিন মোল্লা, আব্দুল করিম, আব্দুল হালিম, খন্দকার শাকিব আহমেদ, ফকির আখতারুজ্জামান, মোঃ মশিউর রহমান চমক, জেবুন নাহার ও ফকির মাসরিকুজ্জামান, স্বতন্ত্র পরিচালক একরামুল হক, ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস. এম. মঈনুদ্দীন চৌধুরী ও মিঞা কামরুল হাসান চৌধুরী, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালকবৃন্দ মোঃ শাহ্জাহান সিরাজ, এম. আখতার হোসেন, ইমতিয়াজ ইউ. আহমেদ ও নাসিম সেকান্দার এবং ব্যাংকের কোম্পানী সচিব মোঃ আবুল বাশার ডিজিটাল প্লাটফর্মে আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। ব্যাংকের করপোরেট প্রধান কার্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রধানগণ, শাখা ও উপ-শাখার ব্যবস্থাপকবৃন্দসহ সহ¯্রাধিক কর্মকর্তা উক্ত সভায় অংশগ্রহণ করেন। ব্যাংকের জনসংযোগ বিভাগের প্রধান মোঃ সামছুদ্দোহা অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন।

সভায় আলোচকবৃন্দ আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান ও তাঁর জীবন দর্শন প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে প্রচারের উপর গুরুত্বারোপ করেন। বক্তাগণ বলেন, দেশের স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জানা প্রয়োজন। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। বাংলাদেশের স্বাধীনতার পেছনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুবিশাল অবদান বাঙ্গালি জাতি চিরকাল কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দূরদর্শী এবং আপোষহীন নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিবাদী। তিনি সবসময় এদেশের মানুষের মুক্তি নিয়ে চিন্তা করতেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদেরকে সোনার বাংলা উপহার দিয়ে গেছেন। যতদিন এই বাংলাদেশ থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধুর নাম আমাদের স্মৃতিতে অ¤øান হয়ে থাকবে। স্বাধীনতা এবং শোষিত বাঙ্গালীদের অধিকার আদায়ে প্রতিবাদ ও সংগ্রাম করার জন্য বঙ্গবন্ধুকে তাঁর জীবনের বেশীরভাগ সময় জেল হাজতে থাকতে হয়েছে।

সভায় আলোচনা শেষে, ১৫ আগস্ট ১৯৭৫ সালে নিহত বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দো’য়া ও মোনাজাত করা হয়।

 



Source link