তুরস্কের বিনিয়োগ আকর্ষণের লক্ষ্যে ইস্তাম্বুলে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট রোডশো অনুষ্ঠিত

20


বাংলাদেশে তুরস্কের বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে সম্প্রতি তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট রোডশো অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা), তুরস্কে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস, বাংলাদেশ কনস্যুলেট, ইস্তাম্বুল যৌথভাবে এই ইনভেস্টমেন্ট রোড শোর আয়োজন করে। 

এফবিসিসিআইয়ের সহায়তায় দেশের শীর্ষস্থানীয় হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস এবং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস কোম্পানি সিঙ্গার বাংলাদেশ লিমিটেড এবং তার প্যারেন্ট কোম্পানি তুরস্কের সর্ববৃহৎ কনজ্যুমার ডিউরেবল কোম্পানি, আর্চেলিক এই আয়োজনটি স্পনসর করেছে। উল্লেখ্য, আর্চেলিক গ্লোবাল ফরচুন ৫০০ কোম্পানির অন্তর্ভুক্ত কচ হোল্ডিং, তুরস্কের সহযোগী কোম্পানি। এর বিশ্বজুড়ে ১২টি ব্র্যান্ড, ২৮টি প্রোডাকশন ফ্যাসিলিটি, ৪৯টি দেশে ৭৪টি সহযোগী প্রতিষ্ঠান এবং ৩০টি আর অ্যান্ড ডি ডিজাইন সেন্টার রয়েছে। 

গত ২০ জুন অনুষ্ঠিত এই ইভেন্টে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক তুরস্কের বিনিয়োগকারীর পাশাপাশি বিডা, তুরস্কে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস, বাংলাদেশ কনস্যুলেট, এফবিসিসিআই, আর্চেলিক, তুরস্ক এবং সিঙ্গার বাংলাদেশের কর্মকর্তারা অংশ নেন। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মসুদ মান্নান, এনডিসি; বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মুস্তাফা ওসমান তুরান (ভার্চুয়ালি অংশ নিয়েছেন), বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম, এফবিসিসিআই-এর সভাপতি মো. জসীম উদ্দিন, কনসাল জেনারেল মোহাম্মেদ নূরে-আলম, আর্চেলিক-এর প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা জেমিল জান ডিনচার, সিঙ্গার বাংলাদেশ-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম এইচ এম ফাইরোজ এবং তুরস্ক-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিদায়েত অনুর অজডেন।

অনুষ্ঠানে সিঙ্গার বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী এম এইচ এম ফাইরোজ উল্লেখ করেন যে, আর্চেলিক ও সিঙ্গার বাংলাদেশের চলমান উন্নয়ন প্রক্রিয়ার অংশীদার হতে পেরে আনন্দিত। 

বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট রোড শোতে বাংলাদেশে তুরস্কের বিনিয়োগ আকর্ষণের লক্ষ্যে সম্ভাব্য বিনিয়োগকারী এবং ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দলের কাছে বাংলাদেশের বিনিয়োগের সার্বিক চিত্র তুলে ধরেন। তা ছাড়া বাংলাদেশ ও তুরস্কের চলমান ব্যবসায়িক পরিধি বৃদ্ধি করাও এই ইভেন্টের লক্ষ্য ছিল।

তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত, বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত, এফবিসিসিআই সভাপতি, তুরস্ক-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল আলোচ্য অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম বাংলাদেশের বিনিয়োগ পরিস্থিতি এবং বিনিয়োগের সম্ভাব্য সুযোগ সম্পর্কিত মূল নিবন্ধ উপস্থাপন করেন। তিনি বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন উদ্যোগ ও সংস্কার কর্মসূচির ওপর আলোকপাত করেন। 

বাংলাদেশ থেকে অংশগ্রহণকারীগণ ইস্তাম্বুলে আর্চেলিক এর সর্বাধুনিক ম্যানুফ্যাকচারিং কমপ্লেক্স ও আর অ্যান্ড ডি সেন্টারও পরিদর্শন করেন। তারা আর্চেলিকের টেকসই ও পরিবেশবান্ধব বিভিন্ন উদ্যোগের প্রশংসা করেন।





Source link