সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ নিয়ে সংসদে বিবৃতি চান বিএনপির হারুন

16


সীতাকুণ্ডের বিএম কনটেইনার ডিপোতে বিস্ফোরণের ঘটনায় জাতীয় সংসদে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর সুস্পষ্ট বিবৃতি দাবি জানিয়েছেন বিএনপির দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ। 

আজ রোববার একাদশ জাতীয় সংসদরে অষ্টাদশ অধিবেশনে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে হারুন এ দাবি জানান।

বাংলাদেশের ৫০ বছরের ইতিহাসে এমন ঘটনা ঘটেনি উল্লেখ করে হারুনুর রশীদ বলেন, ‘এটি একটি বেসরকারি ডিপো। যারা আহত হয়েছেন তাঁদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা সরকারিভাবে করার অনুরোধ জানাচ্ছি। এটি কোনো জাতীয়-আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র কি না? তার কারণ এখানে ভয়াবহ একটি ঘটনা। হাজার হাজার কনটেইনার সেখানে সংরক্ষিত ছিল।’

ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা মালিক এখনো গ্রেপ্তার হয়নি কেন জানতে চান হারুন। তিনি বলেন, ‘এটার ব্যবস্থাপনার সঙ্গে যারা জড়িত এখনো তাদের আইনের আওতায় আনা হয় নাই। আমি জানি না তাদের আইনের আওতায় আনা হবে কি না। তার কারণ এখানে যে দাহ্য পদার্থের কনটেইনার, যে তার ভেতরে প্রবেশ করেছে সেইখানে তো প্রবেশ করার আগে এই বিষয়গুলো সম্পর্কে তারা অবহিত হওয়া উচিত ছিল।’

এমপি হারুন বলেন, ‘সাধারণ কনটেইনারের মধ্যে যদি দাহ্য পদার্থের কনটেইনার ঢোকান, যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ঘটনার পরে গোটা ডিপো আজকে যেভাবে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে, এর দায়-দায়িত্ব কে নেবে? যারা ওখানে আমদানি এবং রপ্তানির জন্য এই কনটেইনারগুলো মজুত ছিল, যারা ক্ষতিগ্রস্ত হলো তাদের কে পুনর্বাসন করবে? অর্থ সহায়তা দেবে? হাজার হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হবে। এখনো জানি না যে এখানে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে।’

শুধু তদন্ত কমিটি গঠন নয়, জাতীয় সংসদে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর কাছে সুস্পষ্ট বিবৃতির দাবি করে হারুন বলেন, ‘এটি কীভাবে সংঘটিত হয়েছে, এর ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কত এ বিষয়ে স্পষ্ট বিবৃতি আমরা দাবি করছি।’

দেশের বন্দরগুলো আন্তর্জাতিকভাবে বিভিন্ন দেশ ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছে। এ কারণে কোনো ষড়যন্ত্র হচ্ছে কি না সে আশঙ্কা প্রকাশ করে বিএনপি দলীয় এ এমপি বলেন, ‘এখানে সেনাবাহিনীসহ যারা বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ এবং একটি নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটির মাধ্যমে তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। এ ব্যাপারে আগামী বাজেট অধিবেশনের মধ্যেই মন্ত্রী সুস্পষ্ট বিবৃতি দেবেন— এটি আমার দাবি থাকবে।’





Source link