পদ্মা সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দাওয়াত পেতে পারেন খালেদা জিয়াও: কাদের

18


বড় আয়োজন করে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবে সরকার। এ অনুষ্ঠানে বিরোধী দলগুলোর নেতারাও দাওয়াত পাবেন। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও দাওয়াত পেতে পারেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

আজ শনিবার দুপুরে মহাখালী ব্রাক সেন্টারে ব্র্যাকের উদ্যোগে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নারী চালকদের সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। 

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়াকে দাওয়াত দেওয়া হবে কি না সাংবাদিকেরা জানতে চাইলে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কাউকে দাওয়াত দেব না এটা বলিনি। খালেদা জিয়া নিয়মের মধ্যে পড়লে অবশ্যই দেব। কারণ তিনি দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি, আবার বিএনপির চেয়াপারসনও। নিয়মটি জেনে আমরা দাওয়াত দেব। তবে বিএনপি নেতারা অবশ্যই দাওয়াত পাবেন। তাঁদের শরিক দল, বাম-ডান সবাই দাওয়াত পাবেন।’ 

পদ্মা সেতুর অর্থায়নে অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে শুরুতে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সরকারের বিরোধ তুঙ্গে উঠেছিল। তাদের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পদ্মা সেতু তৈরির আগে অনেকেই বিরোধিতা করেছিলেন। আমার পাশেই বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধি আছেন। আমরা তাঁদেরও, মানে বিশ্বব্যাংককে দাওয়াত দেব পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে।’ 

এ সময় বিএনপি ও বিরোধী দলগুলোর সরকারবিরোধী আন্দোলনের ঘোষণা, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি এবং সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

উল্লেখ্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উদযাপনে কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়। 

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান একযোগে সারা দেশে দেখানো হবে। জেলায় জেলায় উৎসব করেও এই ক্ষণ উদযাপন করা হবে। পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকবে। আর ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুরসহ কয়েকটি জেলায় এ উপলক্ষে ২৫ জুন থেকে পাঁচ দিন পর্যন্ত বিভিন্ন অনুষ্ঠান চলবে। এর মধ্যে ঢাকার হাতিরঝিলে আয়োজন করা হবে লেজার শোর।





Source link