জনশুমারি উপলক্ষে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

14


জনশুমারি ও গৃহগণনায় জনগণ যাতে সক্রিয় অংশ নিয়ে সঠিক তথ্য দেয় সে জন্য সংসদ সদস্যসহ সর্বস্তরের জনপ্রতিনিধিদের সহায়তা চেয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান। এদিকে তিনি জানান, শুমারি শুরু আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন। 

আজ সোমবার জাতীয় সংসদে ৩০০ বিধির এক বিবৃতিতে এসব কথা জানান পরিকল্পনা মন্ত্রী। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন হয়। 

সক্রিয় অংশগ্রহণের পাশাপাশি দেশের সাধারণ জনগণকে শুমারিতে সঠিক তথ্য প্রদানে উদ্বুদ্ধ করতে শুমারিতে সঠিক তথ্য প্রদানে উদ্বুদ্ধ করতে স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, চিফ হুইপ, হুইপবৃন্দ, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী এবং বিরোধীদলীয় নেতা ও সব সংসদ সদস্যর সার্বিক সহায়তা চেয়ে উপানুষ্ঠানিক পত্র প্রেরণ করা কথা জানান পরিকল্পনা মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘এই মহান সংসদে আমি পুনরায় আমার এই সহযোগীতার আবেদন পুনর্ব্যক্ত করছি।’ 

দেশের সকল মানুষের আর্থসামাজিক তথ্য সংগ্রহে সারা দেশে আগামী ১৫ থেকে ২১ জুন সাত দিন একযোগে জনশুমারি ও গৃহগণনা করবে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)। 

মন্ত্রী জানান, শুমারির প্রচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আগামী ৭ জুন মহামান্য রাষ্ট্রপতি কর্তৃক উদ্বোধনী খাম সংবলিত স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, ‘শুমারি শুরুর প্রাক্কালে ১৪ জুন প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ প্রদান করবেন। এ ছাড়া, বহুল প্রচারিত ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় নিয়মিত বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি আগামী ১৫ জুন জনশুমারি বিষয়ে ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে। 

বিবৃতিতে শুমারি নিয়ে সার্বিক পরিকল্পনা তুলে ধরেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান।





Source link