চাল মজুতকারীরা আওয়ামী লীগের হলেও ছাড় নেই: খাদ্যমন্ত্রী

29


অবৈধভাবে চাল মজুতকারীরা আওয়ামী লীগের হলেও ছাড়া দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। চাল মজুতকারীদের বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। বুধবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান মন্ত্রী।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘চালের পর্যাপ্ত মজুত থাকা সত্ত্বেও সম্প্রতি চালের দাম দফায় দফায় বেড়ে যাওয়ায় সারা দেশে অবৈধভাবে চাল মজুতের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিজে এ বিষয়টি মনিটর করছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এদের বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান চালাতে।’

অবৈধ মজুতকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে উল্লেখ করে খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘যারা এই কাজ করছে তাঁরা যে দলেরই হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবেই। আওয়ামী লীগের হলেও তাঁরা ছাড় পাবে না।’

চাল সরবরাহের কোনো ঘাটতি না থাকার পরও চালের দাম বাড়তে থাকায় সোমবার মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত অনুসারে সারা দেশেই অভিযান পরিচালনা শুরু হয়েছে জানিয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ইতিমধ্যে দেশের ছয়টি বড় গ্রুপ কোম্পানি অবৈধভাবে চালের মজুত করছে বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।’

চাল মজুতের বিরুদ্ধে এই অভিযান চলমান থাকবে জানিয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যেসব ব্যবসায়ী অভিযানের ভয়ে পালিয়ে যাচ্ছে দোকান রেখে, তাঁরা পালিয়েও পার পাবে না। এই অভিযানের পর চালের দাম কমে আসবে।’

এদিকে, অতিবৃষ্টি ও বন্যায় কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা নিরূপণ করে জানানোর জন্য প্রত্যেক জেলা প্রশাসককে ৭ দিন সময় দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। 





Source link