এক মাসে ১৩১ কোটি টাকার চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য জব্দ করেছে বিজিবি

16


দেশের সীমান্ত এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এত মে মাসে ১৩১ কোটি ৪১ লাখ ৭৯ হাজার টাকা মূল্যের মাদকসহ বিভিন্ন প্রকারের চোরাচালান পণ্য, অস্ত্র ও গোলাবারুদ জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। পাশাপাশি ২২৭ জন চোরাচালানকারীসহ ভারত, মিয়ানমারসহ অবৈধ প্রবেশের অভিযোগে বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের আটক করা হয়। 

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিজিবি’র জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম। 

শরিফুল ইসলাম জানান, গত মে মাসে দেশের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদক সিগারেট, বিভিন্ন প্রকার ওষুধ, স্বর্ণ, কসমেটিকস, পোশাকসহ বিভিন্ন সামগ্রী অবৈধ পাচারের সময়ে জব্দ করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন প্রকার অস্ত্র ও বিস্ফোরক জাতীয় সালফার আটক করা হয়। 

বিজিবির বিভিন্ন ব্যাটালিয়নের অভিযানে জব্দকৃত মাদকের মধ্যে রয়েছে ১২ লাখ ১৩ হাজার ১৭১ পিচ ইয়াবা, ৭ কেজি ৮৯৮ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ আইস, ১ কেজি ৮৮৫ গ্রাম হেরোইন, ৩ কেজি ১৫০ গ্রাম আফিম, ২ লাখ ২০ হাজার ৬৭ বোতল ফেনসিডিল, ১২ হাজার ৫৮৮ বোতল বিদেশি মদ, ৩ হাজার ৯৬০ ক্যান বিয়ার, ২ হাজার ১৪৮ কেজি গাঁজা, ২ লাখ ৮০ হাজার ৬৩৯ প্যাকেট বিড়ি ও সিগারেট, ৮৩৫ কেজি তামাক পাতা, ৫১ হাজার ১৩৭টি ইনজেকশন, ৫ হাজার ৬৯৬টি ইস্কাফ সিরাপ, ১ হাজার ৩১ বোতল এমকেডিল, ৬ লাখ ৫২ হাজার ১৬২ পিস বিভিন্ন প্রকারের ওষুধ, ৪ হাজার ৪০০টি সেনেগ্রা ট্যাবলেট এবং ৬৮ হাজার ৯৬৩টি অন্যান্য ট্যাবলেট।

অভিযানে জব্দ করা অন্যান্য চোরাচালান দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে ১৪ কেজি ৫৮৫ গ্রাম স্বর্ণ, ৩৫ কেজি ২৭৪ গ্রাম রুপা, ৭১ হাজার ৯৫৯টি কসমেটিকস সামগ্রী, ১৮ হাজার ৭৮৬টি ইমিটেশন গয়না, ৯ হাজার ৫২৬টি শাড়ি, ১ হাজার ৮০০টি থ্রিপিস, ৪৬৬টি তৈরি পোশাক, ১ হাজার ৯৪২ ঘনফুট কাঠ, ২৬ হাজার ১৯২ ঘনফুট পাথর, ৫ হাজার ৫৩৬ কেজি চা পাতা, ৪৯ হাজার ৬০০ কেজি কয়লা, ১১১ কেজি কারেন্ট জাল, ১টি কষ্টি পাথরের মূর্তি, ৫টি ট্রাক-কাভার্ডভ্যান, ৪টি প্রাইভেটকার-মাইক্রোবাস,৭টি পিকআপ, ২৫টি সিএনজি-ইজিবাইক এবং ৮৪টি মোটরসাইকেল। এছাড়াও বিভিন্ন প্রকার মোট ৩১টি অস্ত্র,২টি ম্যাগাজিন, ৮৪ রাউন্ড গুলি এবং ১১৬ কেজি বিস্ফোরক জাতীয় সালফার আটক করা হয়। 

এছাড়াও সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদক পাচার ও অন্যান্য চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে ২২৭ জন চোরাকারবারীকে এবং অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের দায়ে ১৬৩ জন বাংলাদেশি নাগরিক, নয়জন ভারতীয় নাগরিক এবং একজন আফগান নাগরিককে আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।





Source link