হঠাৎ নিজেকে কেন আড়াল করছেন নাদাল

27


বিশ্বে নতুন করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বাদ পড়ছেন না ক্রীড়াবিদেরাও।

ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে দুই দফা করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছেন রোহিত শর্মা। ভারতীয় অধিনায়ক আইসোলেশনে থাকায় খেলতে পারছেন না এজবাস্টন টেস্টে। একই কারণে নেই ইংল্যান্ডের কিপার-ব্যাটার বেন ফোকস।

ক্রিকেটের মতো টেনিসেও করোনার চোখ রাঙানি। ক্রোয়েশিয়ার মারিন চিলিচ, ইতালির মাতেও বারেত্তিনির পর পজিটিভ হয়ে উইম্বলডন থেকে ছিটকে গেছেন স্পেনের রবার্তো বাউতিস্তা আগুত।

এ ঘটনায় শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন রাফায়েল নাদাল। বাইরে বেরোলেই মুখে থাকছে মাস্ক, হাতে থাকছে স্যানিটাইজার। বাড়তি সতর্কতা হিসেবে ম্যাচ ও অনুশীলন ছাড়া বাকি সময় হোটেল কক্ষেই নিজেকে বন্দী রাখছেন তিনি।

রেকর্ড ২২ গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী নাদাল বলেছেন, ‘করোনার ব্যাপারে সতর্ক থাকতেই হবে। এটাই বাস্তবতা। আজ (গতকাল) আমার বন্ধু আগুত নিজেকে সরিয়ে নিয়েছে। যেহেতু আবার করোনা ছড়াতে শুরু করেছে, ভয়ের কারণ তো আছেই।’ 

এবারের উইম্বলডনে খেলোয়াড়দের করোনা টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে বাধ্যবাধকতা নেই। লন্ডনের সবুজ গালিচায় দর্শক প্রবেশেও কড়াকড়ি নেই। সে কারণেই নাদাল কোর্টের বাইরে নিজেকে আড়াল করে রাখছেন, ‘দরকার ছাড়া বাইরে যাই না। গত দুই বছর ধরে আমরা কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছি। বলছি না যে, সঠিক পথ অবলম্বন করছি না। তবে স্বাভাবিক জীবন যাপনের জন্য সবকিছু খুলে দেওয়ায় আবার সংক্রমণ বাড়ছে।’ 

 ৩৬ বছর বয়সী নাদালের ক্যালেন্ডার স্লাম (বছরের সব কটি গ্র্যান্ড স্লাম জয়) পূরণের সুযোগ আছে। ইতিমধ্যেই অস্ট্রেলিয়ান ও ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতেছেন স্প্যানিশ টেনিস নক্ষত্র। 





Source link