ম্যাচ সেরা বাবর হলেও পুরস্কার তুলে দিলেন খুশদিলের হাতে

16


ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করেছে পাকিস্তান। দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে দলের জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বাবর আজম।কিন্তু শেষ পর্যন্ত উইকেটে থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেননি। শেষদিকে গুরুত্বপূর্ণ ওই কাজটি করেছেন খুশদিল শাল। তাই ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েও পুরস্কারটি খুশদিলের হাতে তুলে দিয়েছেন বাবর।

বাবর আজম যতক্ষণ উইকেটে ছিলেন মনে হচ্ছিল সহজ জয় পেতে যাচ্ছে পাকিস্তান। কিন্তু দলীয় ২৩৭ রানে বাবর ফিরলে প্রয়োজন রান রেট বাড়তে থাকে। শেষ চার ওভারে পাকিস্তানের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ২৪ বলে ৪৪ রান। ম্যাচের ভাগ্য যখন ঝুলছিল তখনই টানা তিন ছয়ে ম্যাচের ছবি বদলে দেন খুশদিল। ওই ওভারে পাকিস্তান তোলে ২০ রান। ম্যাচের গতিপথ বদলে যায় তখনই। বাকি কাজটুকুও ঠান্ডা মাথায় করেন খুশদিল। ২৩ বলে ৪১ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে ৪ বল বাকি থাকতেই দলের জয় নিশ্চিত করেন খুশদিল। বাবরের চোখে তাই এই ম্যাচের নায়ক খুশদিলই।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সঞ্চালক বাবরের নাম ঘোষণা করলে তিনিই এগিয়ে যান। কিন্তু  মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে তখন বলেন, ‘ম্যাচসেরার পুরস্কারটি আমি খুশদিলকে দিতে চাই।’ খুশদিলের প্রশংসা করে বাবর বলেন,  ‘সে যেভাবে শেষ করেছে, তা অসাধারণ।’ এরপর খুশদিল ম্যাচসেরার পুরস্কারটি গ্রহণ করেন এবং ম্যান ইব দ্য ম্যাচের বলটিতে সাক্ষর করেন। 

ম্যাচে নিজের পরিকল্পনা কাজে লাগাতে পেরে খুশদিল দারুণ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেছেন, ‘পরিকল্পনা ছিল, খেলাটা শেষ পর্যন্ত টেনে নেওয়া। আর নিজের সবটুকু  ঢেলে দেওয়া। শেষ  দুই বছর ধরে পাওয়ার হিটিং নিয়ে কাজ করছি। (সিরিজের আগে) ১০-১২ দিনের যে ক্যাম্প ছিল, সেখানে কোচরা সহায়তা করেছেন ব্যাটিংয়ে উন্নতি করতে।’





Source link