মাঠে রোনালদোর গোল, গ্যালারিতে মায়ের কান্না

29


আন্তর্জাতিক ফুটবলে সবচেয়ে বেশি গোলের মালিক অনেক আগেই হয়েছেন। এখন প্রতিটি ম্যাচ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর জন্য নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার উপলক্ষ। জাতীয় দল পর্তুগালকেও সামনে এগিয়ে নেওয়ার। 

উয়েফা নেশনস লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে গোল পাননি রোনালদো। স্পেনের বিপক্ষে ম্যাচটিও জিততে পারেনি পর্তুগাল। 

তবে গত রাতে রোনালদোর বাল্য বয়সের ক্লাব স্পোর্টিং লিসবনের মাঠে খেলা দেখতে আসেন তাঁর মা মারিয়া দোলোরেস আভেইরো। বিশেষ দিনে মাকে হতাশ করেননি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মহাতারকা। নিজে জাল কাঁপিয়েছেন দুবার। পর্তুগালও সুইজারল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়েছে ৪-০ গোলে। 

ছেলের সাফল্য দেখে চোখের পানি আটকিয়ে রাখতে পারেননি দোলোরেস আভেইরো। গ্যালারিতে দাঁড়িয়ে করতালি দিতে দিতে আনন্দাশ্রুতে ভাসেন তিনি।  

ম্যাচে রোনালদো-জাদুর দেখা মেলে ৩৫ মিনিটে। গোলের পর মাকে উদ্দেশ্য করে চিরচেনা উদ্‌যাপনে মাতেন। ৪ মিনিট পর আবার দৃশ্যপটে রোনালদো। এটি ছিল তাঁর ১১৭ তম গোল। ছেলের এমন উপহার প্রাপ্তির আনন্দে কেঁদেই ফেলেন দোলোরেস আভেইরো। 

ম্যাচের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রোনালদো লেখেন, ‘আমার এবারের যাত্রায় এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ জয়। দল নিয়ে আমি আত্মবিশ্বাসী ও গর্বিত। শক্তি আর সক্ষমতার কারণেই পর্তুগিজরা আমাদের কাছে যা আশা করে, আমরা দিতে পারি। (ক্লাবের হয়ে খেলার পর) ভেবেছিলাম মৌসুম শেষ। এখন মনে হচ্ছে আসলে মৌসুম সবে শুরু।’





Source link