বিদায়বেলায় মরগানের বিশ্বাস, সাদা বলের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের ভবিষ্যৎ আরও উজ্জ্বল 

13


এউইন মরগান যে আজ অবসর নিতে যাচ্ছে সেটি  অনুমিতই ছিল। বাকি ছিল শুধু আনুষ্ঠানিকতা। ইংলিশ অধিনায়ক নিজেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়ে আজ সেই আনুষ্ঠানিকতা সারলেন।

ইংল্যান্ডের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জিতেছেন মরগান। ২০১০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতা এই আইরিশ ২০১৯ সালে ইংল্যান্ডকে জিতিয়েছেন ওয়ানডে বিশ্বকাপও। বিদায়বেলায় মরগানের বিশ্বাস, সাদা বলের ক্রিকেটে সামনে আরও ভালো করবে ইংল্যান্ড। মরগান বলেছেন, ‘দুটি বিশ্বকাপজয়ী দলে খেলতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। আমার বিশ্বাস, সাদা বলের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের ভবিষ্যৎ আরও উজ্জ্বল। আগের চেয়েও এই দল বেশি অভিজ্ঞ এবং শক্তিশালী। আরও রোমাঞ্চ দেখার অপেক্ষায় আছি।’ 

বিদায়বেলায় সতীর্থ ও সমর্থকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মরগান। ইংলিশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমার সতীর্থ, কোচ,সমর্থকসহ যারা আমার ক্যারিয়ারের সব সময় পাশে থেকে সাফল্য পেতে সহায়তা করেছেন সবাইকে ধন্যবাদ। অধিনায়ক ও খেলোয়াড় হিসেবে যা অর্জন করেছি তা নিয়ে আমি অনেক গর্বিত। তবে যে জিনিসটি সবচেয়ে বেশি মনে রাখব তা হলো  এই পথচলায় দারুণ কিছু মানুষের সঙ্গে আমার অসাধারণ স্মৃতি।’

মরগানের নেতৃত্বে বিশ্বকাপ জিতেছে ইংল্যান্ড। এখনো সেই মরগানই ইংল্যান্ডের ওয়ানডে অধিনায়ক। কিন্তু বিশ্বকাপের পর থেকেই ইংলিশ অধিনায়কের সময়টা ভালো যাচ্ছে না। সাম্প্রতিক সময়ে চোটও বেশ ভুগিয়েছে তাঁকে। এই সবকিছু মিলিয়ে গতকাল থেকেই শোনা যাচ্ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দেবেন মরগান। 

ইংলিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের গতকাল জানিয়েছিল, এই সপ্তাহেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। রাতে ইংল্যান্ডের আরেক জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম স্কাই স্পোর্টস অবশ্য জানিয়েছিল, এই সপ্তাহে নয় আগামীকালই (আজই) অবসরের ঘোষণা দিতে পারেন মরগান। অবশেষে সেটিই সত্যি হলো। 





Source link