উইলিয়ামসন-বোল্টদের সমান বেতন পাবেন কিউই নারীরা

20


পুরুষদের সঙ্গে নারী ক্রিকেটারদের বেতনের ব্যবধান আকাশ-পাতাল। এই বৈষম্য দূর করতে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি) প্রশংসনীয় উদ্যোগ নিয়েছে। এখন থেকে কেন উইলিয়ামসন-ট্রেন্ট বোল্টদের সমান ম্যাচ ফি ও বেতন পাবেন কিউই নারীরা।

এনজেডসি আজ নিজেদের ওয়েবসাইটে বেতন বৈষম্য ঘোচানোর ঘোষণা দিয়েছে। আগামী ১ আগস্ট থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। মেয়াদ থাকবে ৫ বছর। ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম দল হিসেবে এমন নজির গড়ল নিউজিল্যান্ড। এর আগে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) নারীদের বেতন কয়েক গুণ বাড়ালেও সেটা ডেভিড ওয়ার্নার-স্টিভেন স্মিথদের চেয়ে বেশ কম।

শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নয়, নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটেও পুরুষদের সমান বেতন পাবেন পাবে নারীরা। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশন দেশটির ছয়টি আঞ্চলিক ক্রিকেট সংস্থা ও লিঙ্গসমতা বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গড়া কমিটি গঠন করেছিল। সেই কমিটি নতুন পারিশ্রমিক কাঠামো তৈরি করেছে।

নতুন চুক্তি অনুযায়ী, টেস্ট ক্রিকেটে নিউজিল্যান্ডের নারী ও পুরুষ দল উভয়ের ম্যাচ ফি হবে ৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা। ওয়ানডেতে ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা আর টি-টোয়েন্টিতে প্রত্যেক খেলোয়াড় পাবেন ১ লাখ ৪৪ হাজার টাকা করে।

উইলিয়ামসন-বোল্টদের সমান বেতন পাবেন কিউই নারীরা

এ ছাড়া ঘরোয়া বড় দৈর্ঘ্যের টুর্নামেন্ট প্লাঙ্কেট শিল্ডে ম্যাচ ফি করা হয়েছে ৮৫ হাজার টাকা। লিস্ট ‘এ’ সংস্করণের টুর্নামেন্ট ফোর্ড ট্রফিতে ৪৬ হাজার টাকা আর টি-২০ টুর্নামেন্ট সুপার স্ম্যাশে ২৮ হাজার টাকা।

ম্যাচ ফির পাশাপাশি চুক্তিতে থাকা নারী ক্রিকেটারের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। আগে ছয়টি আঞ্চলিক দল ৯ জন করে ক্রিকেটার চুক্তিতে রাখতে পারত। সেটা বাড়িয়ে করা হয়েছে ১২ জন।

উইলিয়ামসন-বোল্টদের সমান বেতন পাবেন কিউই নারীরা এ ছাড়া আবাসন, চোট পরবর্তী পুনর্বাসন, ভ্রমণ, অনুশীলন সব কিছুতেই নিউজিল্যান্ডের পুরুষ ক্রিকেটারদের সমান সুযোগ-সুবিধা পাবেন নারীরা। 

সব মিলিয়ে ক্রিকেটে নারীদের অগ্রযাত্রায় নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করল এনজেডসি।





Source link