উইম্বলডনের সেমিফাইনালে হার না মানা জোকোভিচ

15


হারার আগে কখনো না হারার খ্যাতি আছে নোভাক জোকোভিচের। উইম্বলডনের কোয়ার্টার ফাইনালেও প্রথম দুই সেটে হারার পর হাল ছাড়েননি তিনি। ইতালিয়ান প্রতিপক্ষ ইয়ানিক সিনারের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়িয়ে দারুণ এক জয় পেয়েছেন জোকোভিচ। ৫ সেটে গড়ানো লড়াইয়ে ৭-৫,৬-২, ৩-৬,২-৬, ২-৬ গেমে জিতে সেমিফাইনালে উঠেছেন ২০ গ্র্যান্ড স্লামজয়ী এই তারকা।

সেন্টার কোর্টে আজ ২০ বছর বয়সী সিনার শুরু থেকেই চ্যালেঞ্জে ফেলেন জোকোভিচকে। প্রথম সেটে ৭-৫ গেমে জিতে এগিয়েও যান তিনি। পরের সেটে আরও কোণঠাসা জোকোভিচ। এবার সিনার জেতেন ৬-২ গেমে।

অনেকে তখন টানা দুই সেট হারা জোকোভিচের বিদায়ও প্রায় দেখে ফেলেছিলেন। তবে সার্বিয়ান এই মহাতারকার মনে অন্য কিছু চলছিল। ঘুরে দাঁড়িয়ে ব্যবধান কমান পরের সেটেই। তৃতীয় সেটে জোকোভিচ জেতেন ৬-৩ গেমে। আর শেষ দুই সেটে জোকোর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়তে পারেননি সিনার। ৬-২ ও ৬-২ গেমে হেরে বিদায় নেন শেষ আট থেকেই। 

দারুণ এই জয়ের পর জোকোভিচ বলেন, ‘সে (সিনার) প্রথম দুই সেটে অপেক্ষাকৃত ভালো খেলোয়াড় ছিল। এরপর আমি টয়লেট বিরতিতে গেলাম, নিজের সঙ্গে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলে ফিরে এলাম। এটা সত্য। কখনো কখনো যখন বিষয়গুলো আপনার জন্য ইতিবাচক হয় না তখন এসব বিষয় জরুরি। ভাবনাগুলোকে গুছিয়ে নেওয়ার জন্য একটা ছোট বিরতি কাজে লাগতে পারে।’

জোকোভিচ আরও যোগ করে বলেন, ‘আমি সৌভাগ্যবান যে তৃতীয় সেট ভালোভাবে শুরু করতে পেরেছি। শুরুতেই সার্ভ ব্রেক করতে পেরেছি, এটা আমার আত্মবিশ্বাসকে বাড়িয়ে দিয়েছে। অভিজ্ঞতা আমাকে সহায়তা করেছে।’





Source link