উইম্বলডনের কোর্টেই কোচের সঙ্গে কেভিতোভার বাগ্দান

34


উইম্বলডনের সবুজ গালিচা পেত্রা কেভিতোভাকে দুহাত ভরিয়ে দিয়েছে। চেক তারকার জেতা দুটি গ্র্যান্ড স্লামই যে শিরোপা এসেছে এখান থেকে। জীবনের অন্যতম বড় সিদ্ধান্ত নিতেও উইম্বলডনকে বেছে নিয়েছেন তিনি। গতকাল টেনিস কোর্টেই কোচ আইরি ভানেকের সঙ্গে বাগদান সেরেছেন কেভিতোভা। 

কেভিতোভা-ভানেক দুজনেরই আগে আলাদা সম্পর্ক ছিল। কেভিতোভার সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোয় প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় দুই সন্তানের বাবা ভানেকের। আগের সম্পর্ক থেকে সরে আসেন কেভিতোভাও। দুজনের মন এক হতেই নতুন বন্ধনে জড়ালেন তাঁরা। 

দুটি উইম্বলডন শিরোপা জয়ের সঙ্গে অলিম্পিকে দুবার সোনাও জিতেছেন ৩২ বছর বয়সী কেভিতোভা। তাঁর ক্যারিয়ারে ভালো সব কিছুই হয়েছে উইম্বলডনের রানি হওয়ার পর। তাই সেন্টার কোর্টে গিয়ে কোচ ভানেকের বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হয়ে তাঁকে চুম্বন করেছেন। সেখানেই সেরেছেন বাগ্দান পর্ব। 

সামাজিক মাধ্যমে কেভিতোভা সুখবর দিয়েছেন এভাবে, ‘অনেক ভাবনার পরে অবশেষে আমার কোচ ও বন্ধু ভানেকের প্রস্তাবে হ্যাঁ বললাম। আর সেটি আমার সবচেয়ে প্রিয় জায়গা উইম্বলডনের সেন্টার কোর্টে।’ 

হাতে বাগ্দানের আংটি পরে বাগদত্তা ভানেকের সঙ্গে কেভিতোভা। ছবি: সংগৃহীত

চেক সুন্দরী কেভিতোভা ২০১৬ সাল থেকে তাঁর কোচ ভানেকের সঙ্গে মন দেওয়া-নেওয়া করছেন। এর আগেও তিন পুরুষকে নিজের জালে আটকিয়েছেন তিনি। 

স্বদেশি টেনিস খেলোয়াড় অ্যাডাম পাভ্লাসেক ও রাদেক স্তেপানেকের সঙ্গে বেশ কিছু দিন চুটিয়ে প্রেম করেছেন। এ দুজনকে ছেড়ে ২০১৪ সালে সম্পর্কে জড়ান হকি খেলোয়াড় রাদেক মেইদলের সঙ্গে। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে মেইদলের সঙ্গে আংটি বদলও করেন। তবে পরের বছর মে মাসে তাঁকে ছেড়ে দেন কেভিতোভা। এবার কোচের সঙ্গে সম্পর্কটাকে আরেক ধাপ এগিয়ে নিলেন তিনি।





Source link