মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের সাবেক ইমামের ১০ বছর কারাদণ্ড

27


সৌদি আরবের আপিল আদালত মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের সাবেক ইমাম শেখ সালেহ আল-তালিবকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন। মানবাধিকার সংস্থা ডনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটর।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রিয়াদের একটি বিশেষ আদালত শেখ সালেহ আল তালিবের খালাসের রায় বাতিল করে নতুন এই রায় দিয়েছেন।

২০১৮ সালের আগস্টে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল ৪৮ বছর বয়সী সালেহ আল তালিবকে। কিন্তু কী কারণে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল, সে ব্যাপারে তখন আনুষ্ঠানিক কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি সৌদি সরকার। তিনি তখন মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের ইমাম ছিলেন।

তবে সৌদি বন্দীদের নিয়ে কাজ করা প্রিজনার্স অব কনসায়েন্স অ্যাকাউন্ট বলেছিল, ‘জনসমক্ষে মন্দের বিরুদ্ধে কথা বলা ইসলামে কর্তব্য—এমন একটি খুতবা দেওয়ার পর তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।’

সৌদি আরব ২০১৭ সালের গ্রীষ্ম থেকে এ পর্যন্ত বেশ কয়েকজন আলেমকে গ্রেপ্তার করেছে। এদের মধ্যে কেউ কেউ প্রকাশ্যে উপসাগরীয় রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে পুনর্মিলনের আহ্বান জানিয়েছিলেন। সেই সময় প্রতিবেশী কাতারকে অবরোধ করে রেখেছিল সৌদি আরব। গ্রেপ্তারকৃত আলেমরা এখনো কারাগারে রয়েছেন।

শেখ সালেহ আল তালিব বিশ্বব্যাপী পরিচিত নাম। সারা বিশ্বের হাজার হাজার মানুষ ইউটিউবে তাঁর বক্তৃতা শোনেন। বিশিষ্ট এই আলেমের জন্ম ১৯৭৪ সালের ২৩ জানুয়ারি। তিনি উচ্চ আদালতসহ অন্যান্য আদালতে বিচারক হিসেবে তিন বছর দায়িত্ব পালন করেছিলেন। গ্রেপ্তার হওয়ার আগে পর্যন্ত তিনি মক্কা আল-মুকাররামার আদালতে বিচারক ছিলেন।





Source link