বেলারুশে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাবে রাশিয়া

9


রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, আগামী মাসে তিনি তাঁর বন্ধুরাষ্ট্র বেলারুশে স্বল্প পাল্লার পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাবেন। এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের নাম ইস্কান্দর এম, যা ব্যালেস্টি ও ক্রুজ—উভয় ধরনের হয়। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। 

বিবিসি জানিয়েছে, ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ৫০০ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারবে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা করার পর পশ্চিমা দেশগুলো ও রাশিয়ার মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। এরই মধ্যে ইউক্রেনের প্রতিবেশী দেশ বেলারুশে পারমাণবিক ক্ষমতাসম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্র পাঠানোর ঘোষণা দিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

শুরু থেকেই রুশ প্রেসিডেন্ট পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। বিশ্লেষকেরা মনে করেন, পশ্চিমা দেশগুলো যাতে ইউক্রেন যুদ্ধে হস্তক্ষেপ না করে তার জন্য পুতিন এ কৌশল ব্যবহার করেছেন।

স্থানীয় সময় শনিবার সেন্ট পিটার্সবার্গে এক বক্তৃতায় পুতিন আরও বলেছেন, বেলারুশের ইউএস-২৫ যুদ্ধবিমানগুলো যাতে পারমাণবিক অস্ত্র বহন করতে পারে, তার জন্য উড়োজাহাজগুলোকে উন্নত করতে সব ধরনের সহায্য করবে রাশিয়া। 

এদিকে ইউক্রেন এক বিবৃতিতে বলেছে, কয়েক সপ্তাহ ভয়াবহ লড়াইয়ের পর রুশ বাহিনী ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর সেভেরোদেনৎস্ক পুরোপুরি দখল করে নিয়েছে। 

এর আগে পার্শ্ববর্তী লুহানস্ক ও দোনেৎস্ক শহর দখল করেছে রাশিয়া। সেভেরোদেনৎস্ক দখলের মাধ্যেম পুরো দনবাস অঞ্চল নিয়ন্ত্রণে নিল পুতিনের বাহিনী।

শনিবার গভীর রাতে দেওয়া ভিডিও বক্তৃতায় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রুশদের দখলে থাকা শহরগুলো তাঁরা পুণরুদ্ধার করবেন।

এদিকে ইউক্রেনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে হামলা জোরদার করেছে রুশ বাহিনী। ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বেলারুশ থেকে কয়েকটি রকেট ছোড়া হয়েছে। 

ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর বেলারুশ রাশিয়াকে নানাভাবে সহায়তা দিয়েছে, তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সেনা পাঠায়নি।

ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থা বলেছে, ক্রেমলিন বেলারুশকে যুদ্ধে টানার চেষ্টা করছে। বেলারুশ প্রান্ত থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা সেই চেষ্টারই অংশ।





Source link