বিজেপির বিরুদ্ধে সরকার পতনের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এএপির

29


ভারতের কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপি দিল্লির আম আদমি পার্টির (এএপি) সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার ষড়যন্ত্র করছে। স্থানীয় সময় আজ বুধবার এমনই অভিযোগ করা হয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের এএপির পক্ষ থেকে। বিজেপি এএপির এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে এদিনই বিহার বিজেপির হাতছাড়া হওয়ার পর আস্থা ভোটের আগে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদবের ঘনিষ্ঠ এক বিধায়কের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। 

আম আদমি পার্টির অভিযোগ, বিজেপি নেতারা ২০ কোটি রুপির বিনিময়ে তাদের বিধায়কদের দলবদলের জন্য চাপ দিচ্ছে। সেই সঙ্গে অন্য বিধায়কদের ভাঙিয়ে আনার জন্য ২৫ কোটি রুপি দেওয়ার প্রলোভন দেখানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছে দলটি। 

এর আগে, এএপি শাসিত দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়ার বিরুদ্ধে বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকারের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো দুর্নীতির তদন্তে নেমেছেন। সিসোদিয়া আগেই অভিযোগ করেছিলেন, তাঁদের সরকার ভাঙার জন্যই ব্যবহার করা হচ্ছে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোকে। তাঁর দাবি, বিজেপির তরফে তাঁকে প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে—দলবদল করলেই প্রত্যাহার করা হবে সমস্ত তদন্ত প্রক্রিয়া।

এএপির মুখপাত্র তথা জাতীয় সংসদের সদস্য সঞ্জয় সিং আজ বুধবার সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন, ‘টাকার লোভ দেখানো হচ্ছে বিধায়কদের।’ এএপির বিধায়ক সোমনাথ ভারতীও সাংবাদিকদের জানান, তাঁর কাছে সরাসরি এ ধরনের প্রস্তাব এসেছে।

এদিকে, আজ বুধবারই বিহার বিধানসভায় আস্থা ভোটের আগে রাষ্ট্রীয় জনতা দলের নেতা ও রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদবের ঘনিষ্ঠ বিধায়কের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালায় গোয়েন্দারা। রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তথা তেজস্বীর মা রাবড়ি দেবী এই তল্লাশি-হয়রানির প্রতিবাদ করে বলেছেন, বিজেপির চোখ রাঙানিকে তাঁরা ভয় পান না।





Source link