প্রতিদিন ২০০ পর্যন্ত সৈন্য হারাচ্ছে ইউক্রেন: জেলেনস্কির উপদেষ্টা

18


ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির জ্যেষ্ঠ সহযোগী ও উপদেষ্টা মিখাইলো পদোলিয়াক বলেছেন, রণাঙ্গনে ইউক্রেন প্রতিদিন ১০০ থেকে ২০০ সৈন্য হারাচ্ছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের দনবাস অঞ্চলে রুশ বাহিনীর সঙ্গে একই সমতলে যুদ্ধ করতে হলে ইউক্রেনের শত শত কামান দরকার বলে মনে করেন মিখাইলো পদোলিয়াক। তিনি আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে কিয়েভ মস্কোর সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি নয়।’ 

রুশ বাহিনী দনবাস দখলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। মিখাইলো বলেন, ‘দনবাস দখলে নিতে ইউক্রেনের সেনাদের ওপর নির্বিচারে বোমাবর্ষণ করছে রুশরা। সেখানে রুশ বাহিনী কামান, রকেট, বিমান হামলা থেকে শুরু করে সব ধরনের অপরমাণু অস্ত্রের হামলা চালাচ্ছে।’ 

পশ্চিমা দেশগুলোর কাছে আরও যুদ্ধাস্ত্র পাঠানোর অনুরোধ করেছেন জেলেনস্কির এই উপদেষ্টা। তিনি বলেন, ‘আমাদের এত বেশি সংখ্যক সৈন্য নিহত হওয়া একটাই কারণ। সেটি হচ্ছে, সক্ষমতার দিক থেকে দুই বাহিনী সম্পূর্ণ আলাদা।’ 

মিখাইলো পদোলিয়াক বলেন, ‘আমরা  বিনা প্রয়োজনে কামান চাইছি, তা নয়। বরং যুদ্ধক্ষেত্রের পরিস্থিতির জন্যই কামান দরকার। রুশ সেনাদের মোকাবিলা করার জন্য ইউক্রেনের এখন অন্তত ১৫০ থেকে ৩০০ রকেট লাঞ্চার প্রয়োজন।’ 

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা শুরু করার পর থেকে এ পর্যন্ত রাশিয়া যে সব ভূখণ্ড দখল করেছে, সে সব ফিরিয়ে দিলেই কেবল শান্তি আলোচনা শুরু হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 





Source link