পাকিস্তানে বন্যায় প্রাণহানি বেড়ে ৯৩৭, জরুরি অবস্থা জারি

33


পাকিস্তানে ভয়াবহ বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯৩৭ জনে দাঁড়িয়েছে। গৃহহীন হয়ে পড়েছে লাখ লাখ মানুষ। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। 

দেশটির গণমাধ্যম ডন জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) জাতীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে শাহবাজ শরিফ নেতৃত্বাধীন সরকার। পাশাপাশি সরকারের পক্ষ থেকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে সাহায্য করতে নাগরিকদের অনুদান দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। 

পাকিস্তানের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (এনডিএমএ) জানায়, জুনের মাঝামাঝি থেকে শুরু হওয়া এই বন্যায় ৩৪৩ শিশুসহ ৯৩৭ জনের প্রাণহানি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে সিন্ধু প্রদেশে, ৩০৬ জনের। আর বেলুচিস্তানে ২৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

পাকিস্তানে বন্যায় গৃহহীন হয়ে পড়েছে লাখ লাখ মানুষ। ছবি: এএফপি

এ ছাড়া প্রবল বৃষ্টি, বন্যা ও ভূমিধসের কারণে কয়েক হাজার মানুষ আটকা পড়েছেন। সরকারি-বেসরকারি আশ্রয়শিবিরগুলোতে আশ্রয় নিয়েছেন হাজারো মানুষ। রাস্তাঘাট ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থাও অচল হয়ে পড়েছে। অনেক এলাকায় সড়ক ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে গেছে। পানিতে ভেসে গেছে সেতু।

চলমান এই বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৫ লাখ ঘরবাড়ি। আশ্রয়হীন ৩ কোটি মানুষ। দুর্গতদের সর্বোচ্চ সহায়তার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। ক্ষয়ক্ষতি সামাল দিতে পাকিস্তানের বড় অঙ্কের অর্থের প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ বন্যা ও ত্রাণ কার্যক্রম পর্যালোচনার জন্য একটি বৈঠক করেন। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে সাহায্য করতে নাগরিকদের অনুদান দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।





Source link