নতুন ‘শিবসেনা’ গঠন করতে পারেন সিন্ধে, রুখতে পদক্ষেপ নেবেন উদ্ধব 

9


নতুন ‘শিবসেনা’ গঠন করতে পারে ভারতের মহারাষ্ট্রের ক্ষমতাসীন দল শিবসেনার বিদ্রোহী গ্রুপ। একনাথ সিন্ধের নেতৃত্বে দলটির নাম হতে পারে ‘শিবসেনা বালসাহেব ঠাকরে’। এদিকে, শিবসেনার প্রধান ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুমতি দিয়েছে দলটির জাতীয় নির্বাহী কমিটি। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, একনাথ সিন্ধের পক্ষে রয়েছেন প্রায় ৫০ জন বিধায়ক। এই ৫০ জনের মধ্যে আবার ৪০ জনই শিবসেনার বিধায়ক।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ও শিবসেনার প্রতিষ্ঠাতা বাল ঠাকরের ছেলে উদ্ধব ঠাকরে দলটির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে নির্বাহী কমিটির নেতারা উদ্ধব ঠাকরেকে বিদ্রোহী গ্রুপের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুমতি দিয়েছেন। মুম্বাইয়ের শিবসেনা ভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, যদি বিদ্রোহী গ্রুপ কর্তৃক ‘শিবসেনা বালসাহেব ঠাকরে’ নামে দল গঠনের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দেওয়ার বিষয়টি চ্যালেঞ্জ করা হবে। বৈঠকে উদ্ধব ঠাকরে বলেন, ‘সেনা এখনো শেষ হয়ে যায়নি। যারা এখন বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে তাদের অবশ্যই জবাবদিহির আওতায় আনা হবে। যারা যেতে চায় তারা যেতে পারে, আমি নতুন শিবসেনা গড়ব।’ 

এর আগে, মহারাষ্ট্র বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার বিদ্রোহী গ্রুপ কর্তৃক তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দেন। যদিও একনাথ সিন্ধেসহ ৩৩ জন বিধায়ক ওই অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছিলেন। তবে তাঁরা সরাসরি এই অনাস্থা প্রস্তাব পাঠাননি। তার বদলে তাঁরা ই-মেইলের মাধ্যমে তাঁদের প্রস্তাব পাঠিয়ে দেন। বিপরীতে ডেপুটি স্পিকার বিদ্রোহী গ্রুপের ১৬ বিধায়কের বিরুদ্ধে কেন তাঁদের অযোগ্য ঘোষণা করা হবে না, সে মর্মে নোটিশ জারি করেছেন। 

এদিকে, আজ সকালে এক টুইটে একনাথ সিন্ধে বলেছেন, রাজ্য সরকার তাঁর বাড়িসহ ১৬ জন বিদ্রোহী বিধায়কের বাড়ির নিরাপত্তা প্রত্যাহার করেছে। তিনি রাজ্য সরকারের এমন আচরণকে ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। তবে, একনাথের দাবিকে অস্বীকার করেছেন শিবসেনার প্রধান মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত।





Source link