টপলেস পোশাক কাণ্ডে ক্ষমা চেয়েছেন ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

39


ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সান্না মারিন সরকারি বাসভবনে অতিথিদের সঙ্গে নিজের টপলেস ছবির জন্য ক্ষমা চেয়েছেন।

সম্প্রতি একটি পার্টিতে অংশ নিয়ে নাচগান করার ভিডিও ফাঁস হওয়ার পর বিরোধীদের রোষানলে পড়েন ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সান্না মারিন। তিনি ওই পার্টিতে মাদক সেবন করেছেন কি না, তা নিশ্চিত হতে তাঁকে মাদক পরীক্ষাও করতে হয়েছে।

সান্না মারিন ‘ছবিটি উপযুক্ত নয়’ স্বীকার করেছেন এবং ক্ষমা চেয়েছেন। 

সোমবার, ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, সরকারি বাসভবনে পার্টিটি জুলাই মাসে রুইসরক সংগীত উৎসবের পরে হয়েছিল। ফিনিশ মিডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ছবিটি অতিথিদের ব্যবহৃত নিচের তলার টয়লেটে তোলা হয়েছে। 

সান্না মারিন বলেন, ‘আমরা সাঁতার কেটেছি এবং একসঙ্গে সময় কাটিয়েছি। তবে এই ধরনের ছবি তোলা উচিত ছিল না, এই আয়োজনে তেমন কিছু ঘটেনি।’

বিবিসির প্রতিবেদনে জানা যায়, চলতি সপ্তাহে ফিনিশ প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে একটি ভিডিও ফুটেজ ফাঁস হয়। ভিডিওতে সান্না মারিনকে তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে একটি পার্টিতে নাচতে ও গাইতে দেখা গেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর বিরোধী দলগুলোর সমালোচনার মুখে পড়েন মারিন।

এর আগে, কখনো মাদক নেননি দাবি করে সান্না মারিন বলেন, ‘এমনকি কিশোরী বয়সেও আমি কোনো দিন মাদক সেবন করিনি। আমি পরীক্ষা করিয়েছি সবাইকে নিশ্চিত হওয়ার জন্য।’ 

২০১৯ সালে ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন ৩৬ বছর বয়সী সান্না মারিন। ওই সময় বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তিনি।





Source link