এখনই শেয়ার কিনতে পারবে না আদানি গ্রুপ, বলছে এনডিটিভি

24


শেয়ার বাজার নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়া ভারতের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম নিউ দিল্লি টেলিভিশনের (এনডিটিভি) শেয়ার কেনার চুক্তিটি সম্পন্ন করতে পারবে না আদানি গ্রুপ। বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) এনডিটিভি কর্তৃপক্ষের এক বিবৃতিতে এমনটা দাবি করা হয়েছে।

মানি কন্ট্রোলের প্রতিবেদনে জানা যায়, এনডিটিভির ২৯ দশমিক ১৮ শতাংশ শেয়ার দখলে থাকার দাবি করেছে আদানি গ্রুপ। এমনকি আরও ২৬ শতাংশ শেয়ার অধিগ্রহণের জন্য প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। এর পর একটি বিবৃতি দেয় এনডিটিভি।

এনডিটিভির বিবৃতিতে বলা হয়, ২০২০ সালের ২৭ নভেম্বর সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অফ ইন্ডিয়া (এসইবিআই) এর নির্দেশাবলিতে, এনডিটিভির প্রতিষ্ঠাতা ড. প্রণয় রায় ও রাধিকা রায়কে শেয়ার বিক্রি বা লেনদেন না করতে সময় বেঁধে দেওয়া হয়। ২ বছরের ওই সময়সীমা শেষ হবে এ বছরের ২৬ নভেম্বর। আর এরই পরিপ্রেক্ষিতে এসইবিআইয়ের অনুমোদন ছাড়া এনডিটিভির শেয়ার কিনতে পারবে না আদানি গ্রুপ।

এর আগে স্টক এক্সচেঞ্জের একটি নথি প্রকাশ্যে আসে। তাতে এনডিটিভি কর্তৃপক্ষ বলেছে, দুই প্রতিষ্ঠাতা এনডিটিভিতে মালিকানা পরিবর্তন বা তাঁদের শেয়ারের হাতবদলের জন্য কোনো সংস্থার সঙ্গে আলোচনা করছেন না। অভ্যন্তরীণ নথিতে বলা হয়, আদানি গ্রুপের এই উদ্যোগ যদি সফল হয়, তাহলে দুই প্রতিষ্ঠাতার হাতে এনডিটিভির শুধু ৩২ শতাংশের মতো শেয়ার থাকবে।

উল্লেখ্য, এক দশকেরও বেশি সময় আগে এনডিটিভির প্রতিষ্ঠাতা রাধিকা ও প্রণয় রায় অন্য আরআরপিআর হোল্ডিং নামের প্রতিষ্ঠান থেকে ৪০০ কোটি রুপি ঋণ নেন। পরে সেই প্রতিষ্ঠান কিনে নেয় বিশ্বপ্রধান কমার্শিয়াল (ভিসিপিএল)। ঋণ পরিশোধে আইসিআইসিআই ব্যাংক থেকে ১৯ শতাংশ সুদে ধার নিয়েছিল আরআরপিআর হোল্ডিং। যাদের হাতে এনডিটিভির ২৯ দশমিক ১৮ শতাংশ শেয়ার। পরে আইসিআইসিআই ব্যাংকের ঋণ শোধের জন্য ২০০৯ সালে বিনা সুদে ৩৫০ কোটি রুপি ধার নেওয়া হয় ভিসিপিএল থেকে।

আদানি গ্রুপ মঙ্গলবার জানায়, তাঁরা ভিসিপিএল অধিগ্রহণ করেছে। ফলে আরআরপিআর ২৯ দশমিক ১৮ শতাংশ শেয়ার এখন তাঁদের। এমনকি আদানি গ্রুপের মালিকানাধীন ভিসিপিএলকে এসব শেয়ার হস্তান্তরে দুই দিনের সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।





Source link