ইউক্রেনের শপিং সেন্টারে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১৬ 

41


ইউক্রেনের ক্রেমেনচুক শহরের একটি জনাকীর্ণ শপিং সেন্টারে রুশ বাহিনী দুটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। এতে অন্তত ১৬ জন নিহত এবং ৫৯ জন আহত হয়েছে। ইউক্রেনের কর্মকর্তারা বলেছেন, স্থানীয় সময় সোমবার এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। 

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, হামলার সময় শপিং সেন্টারটিতে ১ হাজারেরও বেশি মানুষ ছিল। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হামলার পর বিশাল আগুনের গোলা দেখা গেছে এবং পুরো আকাশ কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যেতে দেখা গেছে। 

অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছেন। ভবনটির দেয়াল পুড়ে তামার মতো হয়ে গেছে। 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে জেলেনস্কি এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘কত মানুষ যে হতাহত হয়েছে তা কল্পনা করাও কঠিন। রুশদের কাছ থেকে মানবতা আশা করা অর্থহীন।’ 

ক্রেমেনচুক শহরটি পোলতোভা অঞ্চলের দিনিপ্র নদীর তীরে অবস্থিত। এটি একটি শিল্প শহর এবং এই শহরে দেশের সবচেয়ে বড় তেল শোধনাগার রয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা শুরুর আগে শহরটিতে প্রায় ২ লাখ ১৭ হাজার মানুষ বাস করত। 

পোলতোভা অঞ্চলের গভর্নর দিমিত্রো লুনিন এক টেলিগ্রাম পোস্টে জানিয়েছেন, উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপের নিচে থেকে মৃতদেহগুলো বের করছে। তাই মৃত্যুর চূড়ান্ত সংখ্যা এখনই বলা সম্ভব হচ্ছে না। এটি বেসামরিকদের বিরুদ্ধে স্পষ্ট যুদ্ধাপরাধ। 

তবে রাশিয়া বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। রাশিয়ার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তারা কখনোই বেসামরিক মানুষ কিংবা স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা চালায় না।





Source link