আস্থা নেই বিধায়কদের ওপর, তাই নজরবন্দী হোটেলে

25


নিজ দলের বিধায়কদের ওপরই আস্থা নেই ভারতের রাজনৈতিক দলগুলোর। তাই রাজ্যসভা নির্বাচনের আগে দলীয় বিধায়কেরা ক্রস ভোট দিতে পারেন এমন আশঙ্কায় তাঁদের হোটেলে নজরবন্দী করে রেখেছে দলগুলো।

এরই মধ্যে রাজস্থান, হরিয়ানা, কর্ণাটকে কংগ্রেস, বিজেপি ও আঞ্চলিক দল শিবসেনা, এনসিপি ও জেডিএস নিজ দলের বিধায়কদেরই হোটেলে নজরবন্দী রেখেছে। উদ্দেশ্য, অন্য দলের নেতারা যাতে তাঁদের ফুসলিয়ে ক্রস ভোট দেওয়াতে না পারেন। রাজ্যসভা নির্বাচনের আগে প্রচুর টাকার ছড়াছড়ি হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। 

শুক্রবার ভারতের ৪ রাজ্যের ১৬টি আসনে রাজ্যসভা নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে ১১টি রাজ্য থেকে ৪১ জন বিনা ভোটে জয়ী হয়েছেন। রাজ্যসভার ভোটে বিধায়কেরা দলীয় প্রতিনিধির সামনে ভোট দিতে বাধ্য। কিন্তু তারপরও ক্রস ভোটিং-এর আশঙ্কা থাকে। আর আশঙ্কা যে অমূলক নয়, তা আসামের সদ্য সমাপ্ত রাজ্যসভা নির্বাচনেই প্রমাণ মিলেছে। কংগ্রেস প্রার্থী ক্রস ভোটের কারণেই বিজেপির কাছে পরাস্ত হয়েছেন। 

তবে এবার অবশ্য সতর্ক সব দলই। তাই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে দলীয় বিধায়কদের পাঁচ তারকা হোটেল নজরবন্দী করে রাখা হয়েছে। ‘হোটেল রাজনীতি’র এই কৌশলে বিজেপি, কংগ্রেস, জেডিএস থেকে শুরু করে সব দলই বেশ সক্রিয়। আগে রাজ্যে রাজ্যে আস্থা ভোটের সময় এমনটা দেখা গেলেও হোটেল রাজনীতির এমন ব্যাপকতা রাজ্যসভা নির্বাচনে এই প্রথম। 





Source link