আমদানি ব্যয় কমাতে আরও ৩০০ পণ্যে নিষেধাজ্ঞা দিল শ্রীলঙ্কা 

31


সংকট কাটার কোনো লক্ষণ নেই। এরই মধ্যে শ্রীলঙ্কায় নতুন করে আরও ৩০০ পণ্য আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে শ্রীলঙ্কা। স্থানীয় আজ বুধবার দেশটির প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে। 

এর মধ্যে রয়েছে গৃহস্থালি ও খেলাধুলার বিভিন্ন সরঞ্জাম এবং অন্যান্য যন্ত্রপাতি। গত সপ্তাহে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছিল, দেশটির অভ্যন্তরীণ মুদ্রা প্রবাহ তুলনামূলক বৃদ্ধি পাওয়া সংকট কমে আসছে। তবে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এমন আশাবাদ আমলে না নিয়েই নতুন করে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তবে এমন পদক্ষেপের পরও সংকট কাটার কোনো আভাস দেয়নি ব্যাংক। উল্টো আগামী মাসে চলমান মুদ্রাস্ফীতি সর্বোচ্চ হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেছে। 

প্রায় ২ কোটি ২০ লাখ মানুষের দেশটি দীর্ঘ সময় ধরে বৈদেশিক মুদ্রার ঘাটতির কারণে প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য, ওষুধ, সার, কীটনাশক ইত্যাদি আমদানি বন্ধ রেখেছিল অনেক আগে থেকেই। পরে মুদ্রা সংকটের কারণে, দেশটি জ্বালানি তেল আমদানি করতেও ব্যর্থ হয়। ফলে দেশটি দীর্ঘ সময় জ্বালানি সংকটে ভোগান্তি পোহায়। এরই মধ্যে দেশটির বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ এরই মধ্যে ৫১ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। 

যা হোক, শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি চলতি বছরে অন্তত ৮ শতাংশ সংকুচিত হবে বলে ধারণা করছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আগামী সেপ্টেম্বরে মুদ্রাস্ফীতি রেকর্ড ৬৫ শতাংশে পৌঁছানোর পূর্বাভাস রয়েছে।





Source link