অপহরণ ও ঘুষের অভিযোগে দ. আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে

15


অপহরণ ও ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা। এই অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে। দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার সাবেক প্রধান আর্থার ফ্রেজার তাঁর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মামলায় রামাফোসার বিরুদ্ধে ৪০ লাখ ডলার চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলার বাদী আর্থার ফ্রেজারকে দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার ঘনিষ্ঠ বলে ধারণা করা হয়। 

তবে এসব অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই উল্লেখ করে রামাফোসা জানিয়েছেন, ‘তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অপরাধী কর্মকাণ্ডের কোনো ভিত্তি নেই।’ 

তবে, অনেকের ধারণা সিরিল রামাফোসার বিরুদ্ধে আনীত এসব অভিযোগ দক্ষিণ আফ্রিকার ক্ষমতাসীন আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেসের নেতৃত্ব পরিবর্তনে দৌড়ে থাকা প্রতিদ্বন্দ্বী তার অংশ হতে পারে। আগামী ডিসেম্বরে দলটির নেতৃত্বে পরিবর্তন আসতে পারে।

দক্ষিণ আফ্রিকার পুলিশ বিভাগ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছে, ‘একটি মামলা নথিভুক্ত হয়েছে এবং এর বিরুদ্ধে তদন্তসহ যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ 

২০১৬ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার গোয়েন্দা সংস্থা স্টেট সিকিউরিটি এজেন্সির (এসএসএ) প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে আর্থার ফ্রেজার। তিনি বলেছে, মামলার প্রমাণ হিসেবে তিনি পুলিশের কাছে ছবি, ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য এবং ভিডিও ফুটেজ হস্তান্তর করেছেন।’ 





Source link