অন্তর্বর্তী জামিন পেলেন ইমরান খান

38


ইমরান খানকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছে পাকিস্তানের একটি আদালত। দেশটির একটি অ্যান্টি–টেররিজম আদালত স্থানীয় সময় আজ বৃহস্পতিবার এই জামিন মঞ্জুর করেন। গত সপ্তাহে দেশটির পুলিশ কর্মকর্তা ও এক নারী বিচারকের বিরুদ্ধে মন্তব্য করায় সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল–জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে। 

দিনের শুরুতে বিচারপতি রাজা জাওয়াদ আব্বাসের আদালত ১ লাখ পাকিস্তানি রুপি মুচলেকায় আগামী ১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জামিন মঞ্জুর করেন। পরে অতিরিক্ত সেশন জজ তাহির আব্বাস তেহরিক–ই–ইনসাফ পাকিস্তানের (পিটিআই) চেয়ারম্যানকে ৫ হাজার পাকিস্তানি রুপি মুচলেকায় আগামী ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন। 

আগামী ৩১ আগস্ট ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনীত আদালত অবমাননার অভিযোগের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। 

এর আগে, গত সপ্তাহে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা করে পুলিশ। দলীয় নেতা–কর্মীদের আটক ও নির্যাতন করার জন্য পুলিশ এবং বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলার পর তদন্ত হয় ইমরানের বিরুদ্ধে। তদন্তের পর পাকিস্তানের পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা করে। এজাহারে বলা হয়, ইমরান খান বক্তৃতার মাধ্যমে উত্তেজনা ও সন্ত্রাস ছড়িয়ে দিয়েছেন। 

এর আগে শনিবার (২০ আগস্ট) এক রাজনৈতিক বক্তৃতায় ইমরান পুলিশ প্রধান ও একজন নারী বিচারকের বিরুদ্ধে তাঁর নেতা কর্মীদের আটক ও দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ করেন। এমনকি পুলিশ প্রধান ও বিচারকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি দেন সাবেক এই পাক প্রধানমন্ত্রী। 

এদিকে ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করা হলেই পথে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তাঁর দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) সমর্থকেরা। ইমরান খানের হাতে হাত লাগালেই ইসলামাবাদে বিক্ষোভ শুরু করার কথা জানিয়েছেন তাঁরা। 

এর আগে জনসম্মুখে একজন নারী বিচারক এবং পুলিশ কর্মকর্তাদের হুমকি দিয়ে বক্তব্য রাখায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সুপ্রিম কোর্টকে অনুরোধ জানায় ক্ষমতাসীন সরকার। শনিবার ইসলামাবাদে একটি সমাবেশে হুমকির দিয়ে তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান ইমরান বলেন, তিনি ইসলামাবাদ পুলিশ প্রধান এবং একজন নারী বিচারককে ‘ছাড়বেন না’। 





Source link